ভাবির ‘আত্ম-হ”ত্যা’ রাতে দরজা ভেঙে ধর্ষ”’ণের চেষ্টা,

0
596
ভাবির ‘আত্ম-হ''ত্যা’ রাতে দরজা ভেঙে ধর্ষ'''ণের চেষ্টা,
ভাবির ‘আত্ম-হ''ত্যা’ রাতে দরজা ভেঙে ধর্ষ'''ণের চেষ্টা,

ভাবির ‘আত্ম-হ”ত্যা’ রাতে দরজা ভেঙে ধর্ষ”’ণের চেষ্টা, হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী তানিয়া আক্তার (২২) আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলায় শ্বশুরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার রাতে ‘বাহুবল মডেল থানায় দেবর’জানে আলমকে প্রধান আসামি ক’রে শ্বশুর-শাশু’ড়ি, ননদসহ পাঁচ জনকে আ’সামি করে মাম’লা করেছেন তানিয়ার মা ‘রুনা আক্তার।

এরপরই অভিযান চালিয়ে বুধবার রাত ১টা’র দিকে উপজেলার ভূগলী গ্রাম থেকে মামলার ২’ নম্বর আসামি শ্বশুর হারুনুর রশিদ’কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালি’য়ন (র‌্যাব)।

জানা গেছে, বাহুবল’ উপজেলার মির্জাটুলা ‘গ্রামের সৌদি প্র’বাসী নুরুল ইসলামের মে’য়ে তানিয়া আক্তারের (২২) স’ঙ্গে তিন বছর আগে বিয়ে হয় একই উপজেলার ফদ্রখলা গ্রামের সৌদি প্রবাসী শাহ আলমে’র। বিয়ের পর তাদের কো’লজুড়ে আসে ছেলে সন্তান, যা’ বয়স ২২ মাস। সুখেই যাচ্ছিল তানিয়ার ‘দাম্পত্য জীবন।

কিন্তু তানিয়ার’ ওপর কুদৃষ্টি পড়ে’ দেবর জানে আল’মের। তানিয়াকে প্রায়’ সে উত্ত্যক্ত ক’রত। তানিয়া শ্বশুর-শাশুড়িকে বিষয়টি বারবার জানালেও তারা’ কোনো কর্ণপা’ত করেননি। জানে আলমে’র স্ত্রীকেও বিষয়টি জানান তানিয়া। এ নিয়ে জা’নে আলমের সঙ্গে তার স্ত্রীর ঝগড়াও হয়। স্ত্রী নিষেধ করলেও তার নিষেধ মানেনি জানে আলম। একপর্যায়ে’ জানে আলমের ঘর ছাড়েন তার স্ত্রী। এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়ে পুরো গ্রামে। এদিকে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে জানে আলম। বিচার’দেওয়ার প্রতি’শোধ নিতে মরিয়া উঠে সে। ‘রোববার দিবাগত ‘রাতে দরজার লক ভেঙে তানিয়ার রুমে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে জানে আলম। এ সময় তানিয়া বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এরপর রাতে তানিয়ার ছোট ভাই তানভীরকে মোবাইলে কল দেয় জানে আলম’। সে বলে, তার স্ত্রী অসুস্থ একটি অটোরিকশা নিয়ে আসতে। অটোরিকশা নিয়ে’ জানে আলমের বা’ড়িতে গিয়ে দেখেন তার স্ত্রী নয়, অজ্ঞান’হয়ে পড়ে রয়েছেন তার বো’ন তানিয়া।

পরে তাকে হবি’গঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে ‘গেলে বিষপান করে’ছে বলে ভর্তি করায় তানিয়ার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। এদি’কে সোমবার ভোরে সিলেট হাসপাতা’লে নিয়ে যাওয়ার পথে তা’র মৃত্যু হয়।’

বাহুবল মডেল’ থানার ওসি মোহাম্মদ কাম’রুজ্জামান বলেন, আত্মহত্যায় প্ররোচনায় মামলা করে’ছেন তানিয়ার মা রুনা ‘আক্তার।

র‌্যাব শ্রীমঙ্গল’ ক্যাম্পের এসআই মনির বলেন, উপ’জেরার ভূগলী গ্রাম থেকে নিহতের শ্বশুর’ হারুনুর রশিদকে গ্রেফ’তার করা হয়েছে।

 

আল্লাহর’ রহমত পাওয়ার যোগ্যতা যেন’ সবাই অর্জন করতে’ পারি

আসিফ নজরু’ল সারাজীবন আমি আল্লাহ্-র রহমত পেয়েছি’। বিপদ এসেছে, বিপদ কেটে গেছে। এবারও বিশ্বাস ছিল করোনা অল্পতে সেরে যাবে আমার।

আপনাদের দোয়া’য় তাই হচ্ছে।চারদিন ধরে আমার জ্বর নাই,’ মাথা’ ব্যথা নাই। স্বাদ আর ‘গন্ধ ‘পুরোপুরি ‘ফিরে এসেছে।’

আশা ক’রি দু-তিনদিনের মধ্যে করোনা নেগেটিভ হ’য়ে যাবে। আপনাদের সবার প্রতি আমার অ’সীম কৃতজ্ঞতা।

আল্লাহ্ আমাদের সবাই’কে ভালো রাখুন। উনার রহ’মত পাওয়ার যোগ্যতা যেন আ’মরা সবাই অর্জন করতে পারি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here